কার্যালয়ে তরুণীর সঙ্গে চেয়ারম্যানের অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল।

কার্যালয়ে তরুণীর সঙ্গে চেয়ারম্যানের অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল।

google news
কার্যালয়ে তরুণীর সঙ্গে চেয়ারম্যানের অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল
উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে শিক্ষাবিষয়ক আর্থিক অনুদানের জন্য এসেছিলেন তরুণী

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে এক তরুণীর সঙ্গে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদেরের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) এজাহার পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজা। এর আগে বুধবার নাচোল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম ঝাইটন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল কাদের নিজ অফিসে বসে উপজেলার দক্ষিণ সাঁকোপাড়ার এলাকার এক তরুণীর সঙ্গে অশ্লীল কর্মকাণ্ডে জড়ান। এর মধ্যে অশ্লীলতার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর তরুণীর পরিবারও রয়েছে আতঙ্কে। এমনকি ওই পরিবারকে নানা বে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

ADVERTISEMENT

আরও উল্লেখ করা হয়, উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে শিক্ষাবিষয়ক আর্থিক অনুদানের জন্য গেলে চেয়ারম্যান তাকে ফাঁদে ফেলে শ্লীলতাহানি করেছেন। সাধারণ মানুষ তো বটেই, দলের নেতাকর্মীরাও আবদুল কাদেরের এমন কর্মকাণ্ডে ক্ষুব্ধ। এই জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নওেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিয়াউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওদুদ।

ইতোমধ্যে খাদ্যগুদামে গম ও ধান ক্রয়ে দুর্নীতি, উন্নয়ন বরাদ্দের অর্থ লুটপাট, সরকারি পুকুর লিজ প্রদানে দুর্নীতিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান কাদেরের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় একাধিক প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া সংবাদও প্রচার হয়েছে।

এদিকে, অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে বসে এমন অপকর্মের বিষয়টি ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে এলাকায়। দলের নেতাকর্মীদের দাবি, এর আগে নানা অনিয়মের অভিযোগ থাকলেও পার পেয়ে গেছেন কাদের, অন্তত এবার যেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পরেই ফোন কেটে দেন। এরপর একাধিকবার ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ADVERTISEMENT

জেলা আওয়ামী লীগে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিয়াউর রহমান ঢাকা পোস্টকে জানান, আব্দুল কাদেরকে বিষয়টি নিয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তিনি এর জবাব দিয়েছেন কি না সেটা সাধারণ সম্পাদক বলতে পারবেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে তার ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। নাচোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা বলেন, এ ঘটনায় লিখিত এজাহার পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.