উড্ডয়নের আগ মুহূর্তে বিমানে আগুন, আহত ৩৬।

উড্ডয়নের আগ মুহূর্তে বিমানে আগুন, আহত ৩৬।

চীনের পশ্চিমাঞ্চলে উড্ডয়নের সময় তিব্বত এয়ারলাইন্সের একটি যাত্রীবাহী প্লেনে আগুন ধরে যায়। বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে এই দুর্ঘটনা ঘটে।তবে এ ঘটনায় কেউ মারা না গেলেও ৩৬ জন যাত্রী সামান্য আহত হয়েছেন। বর্তমানে যাত্রীদের সবাই নিরাপদে আছেন।

জানা গেছে, স্থানীয় সময় সকাল ৮টার দিকে চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় চংকিং বিমানবন্দর থেকে তিব্বতের নাংচি বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা দিকে রানওয়েতে যায় তিব্বত এয়ারলাইন্সের বিমান এসই এ৩১৯ মডেলের প্লেনটিতে। এ সময় বিমানটির একটি ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়। ফলে পাইলটরা বিমানটির উড্ডয়ন বাতিল করেন। চংচিং জিয়াংপেই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানায়, ৪০ জনের বেশি যাত্রী সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

সংস্থাটি আরও বলেছে, ফ্লাইটের ক্রুরা জানিয়েছেন, উড্ডয়নের সময় প্লেনটিতে অসঙ্গতি দেখা দেয়। এর পর তারা পদ্ধতি অনুসরণ করে উড্ডয়ন বন্ধ করে দেন। তখনই তা রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। এ সময় প্লেনে আগুন ধরে যায়। এখন আগুন নিভে গেছে। ফ্লাইটটির তিব্বতের নিয়াংচিতে যাওয়ার কথা ছিল। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, এ দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত চলছে। বিমানবন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে।

ফ্লাইড শিডিউলের তথ্য অনুযায়ী, এয়ারবাস এ৩১৯ উড়োজাহাজটি সাড়ে ৯ বছর ধরে সার্ভিসে ছিল। দুই মাসেরও কম সময় আগে আরও একটি মর্মান্তিক প্লেন দুর্ঘটনা ঘটেছিল চীনে। সেসময় ১৩২ যাত্রী নিয়ে গুয়াংশি অঞ্চলে প্লেনটি একটি পাহাড়ে বিধ্বস্ত হয়। এতে সবাই নিহত হন। কর্তৃপক্ষ এখনও এ দুর্ঘটনার কারণ খুঁজে পেতে তদন্ত করছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.