মাঝ আকাশে অসুস্থ পাইলট, নিরাপদে বিমান অবতরণ করালেন ‘অনভিজ্ঞ’ যাত্রী।

মাঝ আকাশে অসুস্থ পাইলট, নিরাপদে বিমান অবতরণ করালেন ‘অনভিজ্ঞ’ যাত্রী।

সিনেমার পর্দায় হামেশাই দেখা যায় এহেন দৃশ্য। ভীষণ সমস্যায় পড়ে প্লেন ল্যান্ড করিয়ে দেন সাধারণ মানুষ। তবে এবার বাস্তবেই ঘটল এই ঘটনা। ফ্লোরিডার এই ঘটনা শুনে রীতিমতো হতবাক সকলে। পাইলট (Pilot) অসুস্থ হয়ে পড়ায় এক যাত্রী উদ্যোগ নিয়ে নিরাপদে বিমান নামিয়ে (Safe Landing) আনেন।

ওই যাত্রী এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলে যোগাযোগ করে জানান, “আমি অত্যন্ত বিপদে পড়ছি। আমাদের পাইলট অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। আমি জানি না কীভাবে প্লেন নামাতে হয়।” এই কথা শুনেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন এটিসি আধিকারিকরা। তাঁরা জিজ্ঞাসা করেন, প্লেনের অবস্থান কোথায়? কিন্তু সেই প্রশ্নের উত্তর সঠিকভাবে দিতে পারেননি ওই যাত্রী। তিনি কেবল জানাতে পারেন, ফ্লোরিডার সমুদ্র সৈকত দেখা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত, প্লেনের অবস্থান জানাতে হয় বিভিন্ন গাণিতিক হিসাব করে।

[আরও পড়ুন: সন্তানের জন্ম দাও, না হলে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ, ছেলে-বউমার বিরুদ্ধে মামলা বাবা-মা’র]
তবে এটিসি কর্মচারীরা বুঝে নেন কোন জায়গায় রয়েছে প্লেনটি। ২০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকা এটিসি আধিকারিক রবার্ট মর্গ্যান দায়িত্ব নেন প্লেনটি নামিয়ে আনার। তিনি ক্রমাগত নির্দেশ দিতে থাকেন ওই যাত্রীকে। মাঝখানে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছিল বলেও জানান হয়েছে। তখন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নির্দেশ দেওয়া হয়। অবশেষে নিরাপদে পাম বিচ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে নামান (Florida Plane Landing) হয় প্লেনটি। জানা গিয়েছে, চালক ছাড়া প্লেনে দু’জন যাত্রী ছিলেন।

ঠিক কী হয়েছে পাইলটের, তা জানা যায়নি। সঙ্গে থাকা দুই যাত্রীর পরিচয়ও জানান হয়নি। এটুকুই জানা গিয়েছে, সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন তাঁরা। এটি ব্যক্তিগত প্লেন বলেই জানা গিয়েছে। তবে নিরাপদে প্লেন নামিয়ে আনার পরে ওই যাত্রীকে অভিনন্দনে ভরিয়ে দেন এটিসি কর্তারা। প্লেন নামানোর দায়িত্বে থাকা রবার্ট বলেছেন, “মনে হচ্ছিল আমি কোনও সিনেমার মধ্যে রয়েছি। এই রকম অভিজ্ঞতা হয়নি কোনওদিন।” তিনি আরও জানিয়েছেন, “আমি নিজের কাজটাই করছিলাম। তবে সাধারণ ভাবে যা করি, তার থেকে বেশ কঠিন ভাবে কাজ করেছি।”

[আরও পড়ুন: জাতীয় সড়কে উলটে গেল ১০ লক্ষ টাকার মদবোঝাই ট্রাক, হামলে পড়ল সুরাপ্রেমীরা


Leave a Reply

Your email address will not be published.